1. rkarimlalmonirhat@gmail.com : Rezaul Karim Manik : Rezaul Karim Manik
  2. maniklalrangpur@gmail.com : রংপুর সংবাদ : রংপুর সংবাদ
পিতার ইচ্ছা পুরণ করতে গরু ও মহিষের ১০টি গাড়িতে বরযাত্রা - রংপুর সংবাদ
সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৩১ অপরাহ্ন

পিতার ইচ্ছা পুরণ করতে গরু ও মহিষের ১০টি গাড়িতে বরযাত্রা

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৭ মে, ২০২৩
  • ২৪৯ জন নিউজটি পড়েছেন

 

পীরগঞ্জ(ঠাকুরগাও)প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে মোটর গাড়ি কিংবা হেলিকপ্টারে নয়, এবার পিতার ইচ্ছা পুরণ করতে গ্রাম বাংলার হারিয়ে যাওয়া গরু ও মহিষের ১০টি গাড়িতে করে বরযাত্রী নিয়ে বর বেশে কনের বাড়িতে বিয়ে করতে গেলেন নিরব নামে এক যুবক আর এ বিয়ে দেখতে ভীড় জমান শত শত নারী-পুরুষ। শুক্রবার বিকালে এমনই একটি ব্যতিক্রম বিয়ের আয়োজন সম্পূর্ণ হয় ।
স্থানীয়রা জানায়, জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার খামার নারায়নপুর গ্রামের কুদ্দুস আলীর ছেলে নিবর (সাব্বির) এর সাথে বিয়ে ঠিক হয় পাশ^বর্তী দুর্গাপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলামে মেয়ে ইসরাত জাহান এশা আকতারের। শুক্রবার ছিল তাদের বিয়ের দিন। নিরবের বাবার ইচ্ছা ছিল- ছেলে বর বেশে গরুর গাড়িতে করে বরযাত্রী নিয়ে কনের বাড়িতে বিয়ে করতে যাবে। বউ মাও আসবে গরু গাড়িতেই। বাবার সেই ইচ্ছা পুরণ করতে গরু ও মহিষের ১০টি গাড়িতে করে বরযাত্রী নিয়ে বর বেশে কনের বাড়িতে বিয়ে করতে যান নিরব। গ্রাম বাংলার হরিয়ে যাওয়া টাপুর যুক্ত গরু-মহিষের গাড়ি দেখতে শত শত নারী পুরুষ বীড় জমান বর ও কনের বাড়িতে। রাস্তা অসংখ্য মানুষ দায়িয়ে গরু-মহিষের গাড়িতে বরযাত্রার দৃশ্য অবলোকন করেন। ছবি ও ভিডিও ধারণ করেন অনেকেই। এমন আয়োজনে খুশি বর কনের পরিবার সহ এলাকাবাসি। গ্রাম বাংলার এ পুরনো ঐতিহ্য ধরে রাখতে আগ্রহও প্রকাশ করেন অনেকে।
বরের পিতা কুদ্দুস বলেন, আমার ইচ্ছা ছিল, ছেলের বিয়েতে বরযাত্রী যাবে গরুর গাড়িতে। এ সময় গরুর গাড়ি পাওয় দুস্কর। তাই মহিষের ৯ টি এবং গরুর একটি গাড়ির আয়োজন করি ছেলের বিয়েতে। ছেলেও মেনে নিয়ে গরু গাড়িতে করেই বিয়ে করতে যায়।
কনের চাচা জয়নাল বলেন, এটা গ্রাম বাংলার হারিয়ে যাওয়া একটি ঐতিহ্য। এ রকম আয়োজনে অমরা খুশি।
নারায়পুর গ্রামে আলম নামে এক ব্যক্তি জানান, তার বাবার কাছে শুনেছেন- তার দাদার বিয়েতে বরযাত্রী ও বর গরুর গাড়িতে করে যায়। এর পর আর গুরু গাড়িতে কোন বর যাত্রার কোন অনুষ্ঠান এলাকায় হয়নি। দেখে ভাল লেগেছে।
মহিষের গাড়ির পেছনে পা ঝুলিয়ে বসা এক বৃদ্ধ জানান, ৪০ বছর আগে এভাবেই এক প্রতিবেশির বিয়েতে বরযাত্রী হিসেবে গিয়েছিলেন। দীর্ঘদিন পর এমন আযোজনে তিনি খুশি।
উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী পীরগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি জয়নাল আবেদিন বাবুল জানান, আবহমান বাংলা গ্রামিন ঐতিহ্যগুলো ক্রমেই হারিয়ে যাচ্ছে। সাম্প্রতিক সময়ে গরুর গাড়িতে বর যাত্রা সহ প্রায় হারিয়ে যাওয়া লোকজ সংস্কৃতির কিছু কিছু আয়োজন লক্ষ্য করা যাচেছ। এ সব গ্রামিন লোকজ ঐতিহ্য এগুলো ধারণ ও লালন করা এখন সময়ের দাবিতে পরিণত হয়েছে।

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

Leave a Reply

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ

© ২০২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রংপুর সংবাদ.কম
Theme Customization By NewsSun