রংপুর সংবাদ » সীমান্তে সমবেত দুই বাংলার মানুষ, ছুঁয়ে দেখা হলো না তবুও

সীমান্তে সমবেত দুই বাংলার মানুষ, ছুঁয়ে দেখা হলো না তবুও


রংপুর সংবাদ অক্টোবর ২৮, ২০১৯, ৩:০৬ অপরাহ্ন
সীমান্তে সমবেত দুই বাংলার মানুষ, ছুঁয়ে দেখা হলো না তবুও

মাঝখানে কাঁটাতারের বড় বড় বেড়া। দুই প্রান্তে অসংখ্য মানুষের ভিড়। দেখে মনে হবে যেন হাট বসেছে। বিনিময় হচ্ছে পরস্পরের উপহার সামগ্রী। এরমধ্যেই স্বজনদের একটি মাত্র ঝলক পেতে সকলের দৃষ্টি হুড়মুড় করে জমে ওঠা এই ভিড়ে।

সোমবার (২৮ অক্টোবর) সকাল ১০ থেকে দুপুর পর্যন্ত এমন দৃশ্যই দেখা যায় লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বাউরা ইউনিয়নের নবীনগর সীমান্তে।

বাংলাদেশ ও ভারত থেকে আসা শত শত মানুষ এই মিলনমেলায় শুধুমাত্র দুই প্রান্তে থাকা আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে সাক্ষাতের উদ্দেশ্যে জড়ো হয়। এ সময় দীর্ঘদিন পর দেখা-সাক্ষাৎ হওয়ায় অনেককেই কান্না করতেও দেখা যায়। এমনকি পরিবার-সংসার নিয়েও আলোচনায় মক্ত হন এসব মানুষ।

স্বাধীনতার পর থেকেই এই সীমান্তে প্রত্যেক বছর কালীপূজা উপলক্ষে দুই বাংলার মানুষ সমবেত হন এই মিলনমেলায়। পাসপোর্ট করতে সামর্থ্যহীন লোকজন শুধুমাত্র এই দিনটির জন্যই অপেক্ষা করেন। বাংলাদেশের লালমনিরহাটসহ আশপাশের জেলাগুলোর বিভিন্ন স্থান থেকে এবং ভারতের কোচবিহার ও আশপাশের জেলাগুলো থেকে বাংলাভাষী লোকজন এই মিলনমেলায় সমবেত হন। নদীর তীর হয়ে ওঠে লোকে-লোকারণ্য। দূর থেকে শোনা যায় স্বজনদের এক ঝলক পেয়ে কান্নার শব্দ।