রংপুর সংবাদ » দেশের একমাত্র ‘লাভ পয়েন্টে’

দেশের একমাত্র ‘লাভ পয়েন্টে’


রংপুর সংবাদ ফেব্রুয়ারী ১৪, ২০২০, ১০:২৬ পূর্বাহ্ন
দেশের একমাত্র ‘লাভ পয়েন্টে’

রাঙামাটি প্রতিনিধিঃভালোবাসার মানুষটাকে শক্তভাবে আঁকড়ে রাখতে কত কিছুই না করে প্রিয় মানুষটি। অনেকেই ছুটে যায় গণকের কাছে কেউবা শরণাপন্ন হন জ্যোতিষির।

এমনো হাজারো পাগলামির ইতিহাস রয়েছে পৃথিবীতে। কত গল্প উপন্যাসই সৃষ্টি হয়েছে ভালোবাসার এসব পাগলামো নিয়ে। কিন্তু রাঙামাটিতে ঘটেছিল এক যুগলের প্রেমের করুন পরিণতি। সদ্য বিবাহিত আলাউদ্দিন-লিমার আলিঙ্গনে মৃত্যুর সংবাদটি দেশ ছাড়িয়ে বিদেশের মাটিতেও বেশ আলোচিত-আলোড়িত হয়েছিল।

সেই করুণ মৃত্যুর কাহিনী জানে না এমন মানুষ খুব কমই খুঁজে পাওয়া যাবে। আমেরিকা প্রবাসী আলাউদ্দিন নব বধুকে নিয়ে হানিমুনে এসেছিল হ্রদ-পাহাড়ঘেরা রাঙামাটি শহরে। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ বিকেলে পর্যটন ঝুলন্ত সেতু থেকে ছোট্ট বোটে করে এশিয়া খ্যাত হ্রদ দেখতে ভ্রমণে বের হন দুজনে।

হাত ধরাধরি করে ইঞ্জিনচালিত বোটে ওঠে দুজন। সুনীল আকাশের নীচে স্বচ্ছ হ্রদের বুক চিরে চলছে ছোট্ট নৌযান আর পাশেই বসা ভালোবাসার মানুষটি। বসন্তের উথাল হাওয়ায় তারাও যেন ভাসছে স্বপ্নের ভেলাতে। কিন্তু সেই স্বপ্নিল উথাল হাওয়া যে তাদেরকে পরপারে নিয়ে যাবে তা কে জানতো।

হঠাৎই কালবৈশাখির উথালপাতাল হাওয়ায় ঢেউ তুলে শান্ত  হ্রদে। মুহুর্তেই উল্টে যায় ছোট্ট বোটটি। বোট থেকে ছিটকে পড়ে লিমা। ভালোবাসার মানুষটিকে বাঁচাতে হ্রদেই ঝাঁপ দেয় আলাউদ্দিন।

শক্ত করে আঁকড়ে ধরে দুজন দুজনকে। মিনিট দশেকের কালবৈশাখির ঝড়ে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় আলাউদ্দিন-লিমার সুখের স্বপ্ন। তলিয়ে যায় হ্রদের অথৈই জলে। লাশ খুঁজতে নামে লোকজন।

রাঙামাটির ফায়ার সার্ভিস ও কাপ্তাই নৌ-বাহিনীর ডুবুরিদের দুইদিনের নিরন্তর প্রচেষ্টাকে ব্যর্থ করে দিয়ে ২২ মার্চ সকালে আলিঙ্গনরত আলাউদ্দিন-লিমার লাশ ভেসে ওঠে ডিসি বাংলোর অদুরে পলওয়েল পার্কের পাশেই। অবাক বিস্ময়ে সেদিন রাঙামাটিবাসী দেখেছিল ভালোবাসার এক অনন্য নজির। এই যেন লাইলি-মজনু, শিরি-ফরহাদ, রোমিও-জুলিয়েট, রজকিনী-চণ্ডিদাসের প্রেমকাব্যকে হার মানিয়েছে।

সংবাদ মাধ্যমের সুবাদে দ্রুতই দেশ ছাড়িয়ে বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে এই সংবাদ। সংবাদ মাধ্যমের সেইসব সংবাদ লাখো মানুষের ফেসবুকের ওয়ালেও জায়গা করে নেয়। রাঙামাটিতে বেড়াতে এসে কত শতই না দুর্ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু কোনো মৃত্যুই এতটা নাড়া দিতে পারেনি; যতটা নাড়া দিয়েছিল আলাউদ্দিন-লিমার আলিঙ্গনরত মৃতদেহ।

আলাউদ্দিন-লিমাকে ভুলে যায়নি রাঙামাটির মানুষ। তাদের ভালোবাসার প্রতি সম্মান জানিয়ে ২০১৬ সালের ১৬ জানুয়ারি সকালে ডিসি বাংলো এলাকার পলওয়েল পার্কে লাভ পয়েন্টের ভিত্তি বসানো হয়। সাথে সংযোজন করা হয় আলাউদ্দিন-লিমার মৃত্যুর করুন কাহিনী। আর এটি পরিচিতি পায় রাঙামাটি ছাড়িয়ে সারাদেশেই। পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষনের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয় ‘লাভ পয়েন্ট। ধীরেধীরে দৃশ্যমান হয় স্বপ্নের লাভ পয়েন্ট।

এই নব দম্পতির ভালোবাসার প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার স্বরূপ আজকের লাভ পয়েন্ট’। এখন কেউ বা চুপিসারে কেউ বা প্রিয়জনের হাত ধরে লাভ পয়েন্টে ঝুলিয়ে দিয়ে আসে তালা। আর চাবি ছুঁড়ে ফেলেন হ্রদের জলে। এভাবেই ভালোবাসার মানুষটিকে আঁকড়ে রাখার নিরন্তর চেষ্টায় থাকেন প্রিয় মানুষটি। বেঁচে থাকুক পৃথিবীর সকল ভালোবাসা। পূর্ণতা পাক আলাউদ্দিন-লিমার মত অকৃত্রিম ভালোবাসা।