1. rkarimlalmonirhat@gmail.com : Rezaul Karim Manik : Rezaul Karim Manik
  2. kibriyalalmonirhat84@gmail.com : Golam Kibriya : Golam Kibriya
  3. mukulrangpur16@gmail.com : Saiful Islam Mukul : Saiful Islam Mukul
  4. maniklalrangpur@gmail.com : রংপুর সংবাদ : রংপুর সংবাদ
পাটগ্রামে হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শিক্ষকদের অভিযোগ তদন্তে ইউএনও | রংপুর সংবাদ
বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ০৩:০৬ অপরাহ্ন

পাটগ্রামে হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শিক্ষকদের অভিযোগ তদন্তে ইউএনও

এসডি দোহা, পাটগ্রাম প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : শনিবার, ৫ জুন, ২০২১

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে সপ্রাবি সহকারী শিক্ষক একাংশের দাখিলকৃত অভিযোগ তদন্ত করেছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পাটগ্রাম ইউএনও সাইফুর রহমান। গত বুধবার ( ২ জুন) দুপুরে তাঁর কার্যালয়ে বাদী- বিবাদীর উপস্থিতিতে এ তদন্ত কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয় বলে জানা গেছে।

পাটগ্রাম উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা( চ:দা:) আবুল হোসেন ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আব্দুল গাফ্ফার এ সময় তদন্তকাজে সহযোগিতা করেন।

ইউএনও অফিস সুত্রে জানা যায়, পাটগ্রাম উপজেলার সপ্রাবি’ সহকারী শিক্ষক একাংশ ১৩ তম গ্রেড ফিক্সেশণ অনলাইন কাজে বিলম্ব ও হয়রানীর অভিযোগ তোলে প্রায় ১৪৩ জন সহকারী শিক্ষক স্বাক্ষরিত একটি অভিযোগ প্রধান হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা বরাবর দাখিল করেন। পাটগ্রাম ইউএনও সাইফুর রহমানকে অভিযোগটি তদন্ত করে অতিদ্রুত রিপোর্ট পাঠাতে বলা হয়েছে।

তদন্তকালে অভিযোগকারী শিক্ষকদের প্রতিনিধি ছাটপানবাড়ি সপ্রাবি সহকারী শিক্ষক আব্দুর রহিম প্রামানিক লিবন বাদী এবং পাটগ্রাম উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলামকে বিবাদী পক্ষ হিসেবে মুখোমুখি জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

এছাড়াও সত্য মিথ্যা যাছাই-বাচাই করার জন্য অভিযোগপত্রে স্বাক্ষরকারী ১৪৩ জনের মধ্যে যে কোন ৩ জনের কাছে অভিযোগের বিষয়ে জানার সিদ্ধান্ত নেন তদন্তকারী কর্মকর্তা।অভিযোগ পত্রের ১১০ ক্রমিকে বৈরাগীরহাট সপ্রাবি’র প্রধান শিক্ষক( চ:দা:) শামসুজ্জোহা প্রধান মিথুন এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, এ ধরনের কোন অভিযোগে স্বাক্ষর করেননি। তিনি আরও বলেন, হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ১৩ তম গ্রেড ফিক্সেশণ কাজ বিলম্বের অভিযোগ তো দূরের কথা দেড় দুই মাস ধরে তিনি উপজেলার ওদিকে যাননি। এ বিষয়ে কারও বিরুদ্ধে তার কোন অভিযোগ নেই বলে মন্তব্য করেন।

এরপর পাটগ্রাম উপজেলা শিক্ষা অফিসার ১৩ তম ক্রমিকে স্বাক্ষরকারী টংটিংডাঙ্গা সপ্রাবি’র সহকারী শিক্ষক শায়লা শাজনিন মোবাইলে শিক্ষা কর্মকর্তার এক প্রশ্নের জবাবে বলেন,১৩ তম গ্রেডের কথা বলে তার স্বাক্ষর নেয়া হয়েছে। হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ফাইল প্রতি ১ হাজার টাকার অভিযোগ করা হয়েছে মর্মে তার বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে বক্তব্য প্রদান করেন।

বাদী পক্ষের প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত সহকারী শিক্ষক আব্দুর রহিম প্রামানিক লিবন এ সময় তদন্তকারী কর্মকর্তা ইউএনও সাইফুর রহমানকে জানান, ১৩ তম গ্রেডিং কাজ বিলম্ব হচ্ছে বলে আমরা আন্দোলন করি। সে সময় হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম সহকারী শিক্ষক নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে রুঢ় আচরণের অভিযোগ তোলে উপর মহলে জানিয়েছেন। এ কারণে সহকারী শিক্ষক একাংশ তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করেছেন।

এমন জবাব অভিযোগের সাথে চরম সাংঘর্ষিক ও পরিপন্থী। বাদী -বিবাদী উভয়পক্ষের বক্তব্য শুনে গোপন তথ্যের ভিত্তিতে সংগ্রহীত ভিডিও ফুটেজ দেখে তদন্ত রিপোর্ট পাঠানো হয়েছে বলে গোপন সুত্রে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে জানতে পাটগ্রাম ইউএনও সাইফুর রহমানের মোবাইলে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি মোবাইল ফোন রিসিপ করেননি।

উপজেলা শিক্ষক সমিতি’র সভাপতি প্রধান শিক্ষক রেজানুর রহমান রেজা ও প্রধান শিক্ষক মহসিন আলমসহ সহকারী শিক্ষক অপর একাংশের নেতৃবৃন্দ অনেকে জানান,পাটগ্রামে এখন শিক্ষকরা বিভক্ত হয়ে পড়েছেন। হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ তদন্তকালে সহকারী শিক্ষকদের অনেকে সাংঘর্ষিক বক্তব্য প্রদান করায় তা যেন ঘ্যাঘের উপর বিষফোঁড়া হয়ে দাঁড়িয়েছে। অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় আন্দোলনরত সহকারী শিক্ষক ( একাংশ) নেতৃবৃন্দের মাথায় হাত পড়েছে।

পাটগ্রাম উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম তাঁর বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন দাবী করে এ প্রতিনিধিকে বলেন,১৩ তম গ্রেডিং ফিক্সেশণ কাজটি সহকারী শিক্ষকদের প্রথম অনলাইন সংযুক্ত করার সময় ২০১৫ সালে কর্মস্থল বিদ্যালয়ের নামের স্থলে শিক্ষা অফিসের ঠিকানা ব্যবহার করার কারণে শিক্ষা অফিসের স্টাপ বিবেচিত হয়েছেন। এমন ত্রুটি থাকায় সেগুলো ডিলেট করে নতুন করে আইডি তৈরী করতে হচ্ছে। এতে প্রযুক্তিগত সমস্যার কারণে বিলম্ব হচ্ছে। ৬৬ টি সপ্রাবি’র প্রধান শিক্ষকসহ ১৪৫ বিদ্যালয়ে ৭৩৬ জন শিক্ষকের মধ্যে প্রায় পৌনে ৭ ‘শ সহকারী শিক্ষক আছেন। ইতোমধ্যে বেশিরভাগ শিক্ষকের আইডি তৈরীর কাজ হয়ে গেছে। অল্প ক’দিনের মধ্যে বাকী কাজগুলোও শেষ হবে বলে ধৈর্য্য ধরার আহবান জানান তিনি।

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ

© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রংপুর সংবাদ.কম
Theme Customization By NewsSun