1. rkarimlalmonirhat@gmail.com : Rezaul Karim Manik : Rezaul Karim Manik
  2. maniklalrangpur@gmail.com : রংপুর সংবাদ : রংপুর সংবাদ
পেস–মেকার বসানোর পর কেবিনে খালেদা জিয়া  - রংপুর সংবাদ
বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৬:২৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মুইও তাড়াতাড়ি তোর কাছোত আসিম’ বলে সাঈদকে চিরবিদায় দিলেন মা বৃহস্পতিবার সারাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা আন্দোলনকারীদের ছয় শিক্ষার্থী হত্যায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন করতে হবে : জিএম কাদের সর্বোচ্চ আদালতের রায়ে হতাশ হতে হবে না:প্রধানমন্ত্রী হাতীবান্ধায় তিস্তার তোড়ে বিলীন কমিউনিটি ক্লিনিক নেতা-কর্মীদের সতর্ক থাকার আহ্বান শেখ হাসিনার, জানালেন কাদের রংপুরে নিহত শিক্ষার্থী আবু সাঈদের জানাজা-দাফন সম্পন্ন ক্যাম্পাস ছাড়ছেন রংপুর বেরোবি শিক্ষার্থীরা, সতর্ক অবস্থানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বেরোবি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা শিক্ষার্থীদের ধাওয়া খেয়ে ক্যাম্পাস ছেড়েছে বেরোবি ছাত্রলীগ

পেস–মেকার বসানোর পর কেবিনে খালেদা জিয়া 

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২৪ জুন, ২০২৪
  • ৩১ জন নিউজটি পড়েছেন

 

নিজস্ব প্রতিবেদক:
হৃদযন্ত্রে সফল ভাবে পেস–মেকার বসানোর প্রায় ২৪ ঘন্টা পর রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালের সিসিইউ থেকে কেবিনে নেওয়া হয়েছে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে। সোমবার বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে তাকে কেবিনে নেওয়া হয়।

বিএনপি চেয়ারপারসনের ব্যাক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন জানান, খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হওয়ায় মেডিকেল বোর্ডের সুপারিশে তাঁকে সিসিইউ সুবিধা সম্বলিত কেবিনে নেওয়া হয়েছে। আপাতত এই হাসপাতালেই আমেরিকা ও যুক্তরাজ্যের চিকিৎসকদের পরামর্শে তাঁর চিকিৎসা চলবে।

সকালে সচিবালয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের এক প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক জানান, পেস–মেকার বসানোর পর খালেদা জিয়া এখন সুস্থ আছেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘খালেদা জিয়ার যে চিকিৎসা প্রয়োজন তা দেশে সংশ্লিষ্ট হাসপাতালে পাচ্ছেন। এ জন্য এখন পর্যন্ত সুস্থ আছেন তিনি। যে অসুখগুলো আছে এর অনেকটা নিরাময়যোগ্য না। ওষুধ দিয়ে নিয়ন্ত্রণে রাখা হয়েছে। এর আগে বিদেশ থেকে চিকিৎসক আনার অনুমতি দিতেও সরকার কার্পণ্য করেনি। সরকারের আন্তরিকতার অভাব থাকলে সেটা সম্ভব ছিল না।’

এরআগে, গত শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালের সিসিইউতে নেওয়া হয় খালেদা জিয়াকে। সেখানে তাঁকে চিকিৎসকদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়। বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার জানান, রাত দেড়টার দিকে হঠাৎই অসুস্থ হয়ে পড়েন বেগম খালেদা জিয়া। শরীরে ইলেক্ট্রলাইটের ভারসাম্যহীনতা দেখা দেয়।

পরদিন রাজধানীর খালেদা জিয়ার হৃদযন্ত্রে পেস-মেকার বসানোর কাজ শুরু করেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দল। খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন সে সময় বলেন, ‘ম্যাডামের (খালেদা জিয়া) হৃদরোগের সমস্যা পূর্ব থেকেই ছিল। সেজন্য হার্টে ব্লক ছিল, একটা স্টেনটিংও করা ছিল। সব কিছু পর্যালোচনা করে এখন মেডিকেলে বোর্ড ম্যাডামের হার্টে পেস-মেকার বসানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

পেস–মেকার হৃদযন্ত্রকে নিয়মিত ছন্দে চলতে সাহায্য করে। হৃদযন্ত্রের স্পন্দন ঠিকমতো চলছে কিনা সেটাও এই যন্ত্র তদারকি করে।

চিকিৎসকেরা জানান, হৃৎপিণ্ডের ডান অ্যাট্রিয়াম প্রাচীরের ওপর দিকে অবস্থিত বিশেষায়িত কার্ডিয়াক পেশিগুচ্ছে গঠিত ও স্বয়ংক্রিয় স্নায়ুতন্ত্রে নিয়ন্ত্রিত একটি ছোট অংশ যা বৈদ্যুতিক তরঙ্গ প্রবাহ ছড়িয়ে দিয়ে হৃৎস্পন্দন সৃষ্টি করে এবং স্পন্দনের ছন্দময়তা বজায় রাখে এই পেসমেকার।

৭৯ বছর বয়সী সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী ডায়াবেটিস, হৃদ্‌রোগ, ফুসফুস, লিভার, কিডনিজটিলতাসহ বিভিন্ন শারীরিক সমস্যায় ভুগছেন।

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

Leave a Reply

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ

© ২০২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রংপুর সংবাদ.কম
Theme Customization By NewsSun