1. rkarimlalmonirhat@gmail.com : Rezaul Karim Manik : Rezaul Karim Manik
  2. maniklalrangpur@gmail.com : রংপুর সংবাদ : রংপুর সংবাদ
কৃষিজমির মাটি ভাটায় জড়িমানা গুনলেন মালিক, আরেকজনকে ১৫ দিনের জেল - রংপুর সংবাদ
শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:১২ অপরাহ্ন

কৃষিজমির মাটি ভাটায় জড়িমানা গুনলেন মালিক, আরেকজনকে ১৫ দিনের জেল

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৩৮ জন নিউজটি পড়েছেন

 

জেলা প্রতিনিধি, নীলফামারী:
নীলফামারীর সৈয়দপুরে অবৈধ ইটভাটায় অভিযান পরিচালনা করেছে নীলফামারী পরিবেশ অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসন। কৃষি জমি হতে মাটি সংগ্রহ ও নিষিদ্ধ এলাকায় ইটভাটা স্থাপন করে পরিচালনা করায় ইটভাটা মালিককে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সাড়ে তিন লাখ টাকা জরিমানা ও একটি ইটভাটার মালিকে পনেরো দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারী) বিকেলে সৈয়দপুর বিভিন্ন ইটভাটায় বিভাগীয় পরিচালক ও নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ ফরহাদ হোসেন ও নীলফামারী সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ অভিযান পরিচালনা করেন। নীলফামারী পুলিশ বিভাগ ও ফায়ার সার্ভিস এর একদল সদস্য অভিযান পরিচালনায় সহযোগিতা করেন।

জানা যায়, সৈয়দপুর পার্বতীপুর রোডের চৌমুহনী বাজার এলাকায় অবস্থিত মোহাম্মদ দিল মোহাম্মদ এর মালিকানাধীন মেসার্স আর এস বি ব্রিকস অনুমোদনবিহীনভাবে কৃষি জমি হতে মাটি সংগ্রহ করে ইটভাটা পরিচালনার দায়ে মোট তিন লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা ধার্য্যপূর্বক আদায় করা হয়। মেসার্স এন আর বি ব্রিকস নিষিদ্ধ এলাকায় ইটভাটা স্থাপন করে পরিচালনা করার অপরাধে ভাটার মালিক মোঃ সফিকুর রহমান এর পনেরো দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়। এ সময় ইটভাটা দুইটির কিলন স্কেভেটর দিয়ে ভেঙ্গে দেয়াসহ ফায়ার সার্ভিসের মাধ্যমে কিলনে পানি দিয়ে আগুন নেভানো হয় প্রস্তুতকৃত কাঁচা ইট নষ্ট করা হয়।

রংপুর বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক ও নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ ফরহাদ হোসেন বলেন, ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন নিয়ন্ত্রণ আইন, (২০১৩ সংশোধিত ২০১৯) অনুযায়ী অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। কৃষি জমি হতে মাটি সংগ্রহ করে ইটভাটা পরিচালনার দায়ে তিন লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা ও আরেকটি ভাটার মালিককে পনেরো দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়। এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

নীলফামারী জেলা পরিবেশ অধিদপ্তর সহকারী পরিচালক কমল কুমার বর্মন বলেন, অনুমোদন ব্যতিত ইটভাটায় মাটি সংগ্রহপূর্বক ইটভাটা পরিচালনা না করার জন্য সতর্ক করা হয়। ইটভাটার কিলনে ফায়ার সার্ভিসের মাধ্যমে পানি দিয়ে আগুন নেভানো হয়। ইটভাটায় মাটি সংগ্রহ না করার জন্য সতর্ক করা হয়।

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

Leave a Reply

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ

© ২০২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রংপুর সংবাদ.কম
Theme Customization By NewsSun