1. rkarimlalmonirhat@gmail.com : Rezaul Karim Manik : Rezaul Karim Manik
  2. maniklalrangpur@gmail.com : রংপুর সংবাদ : রংপুর সংবাদ
রংপুরে ডিভাইস জালিয়াতির সিন্ডিকেটের ১৯ জন গ্রেফতার - রংপুর সংবাদ
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ১১:১৬ পূর্বাহ্ন

রংপুরে ডিভাইস জালিয়াতির সিন্ডিকেটের ১৯ জন গ্রেফতার

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৭০ জন নিউজটি পড়েছেন

 

স্টাফ রিপোর্টার:
রংপুরে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ডিভাইস জালিয়াতি সিন্ডিকেটের ১৯ জনকে গ্রেফতার করেছে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ। এসময় জালিয়াতির অভিযোগে শিক্ষক-পরীক্ষার্থী গ্রেফতারসহ ডিভাইস ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার(৮ ডিসেম্বর) দুপুর ১২ টায় রংপুর নগরীর ডিবি কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো: মনিরুজ্জামান।

প্রেস ব্রিফিংয় সুত্রে জানা যায়, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় বিটু এক্স ডিভাইস ব্যবহার করে পরিক্ষার্থীর প্রশ্নপত্রের উত্তর প্রদানের চুক্তি করা হয়। সেই চুক্তি অনুযায়ী প্রস্তুতির প্রাক্কালে পরিক্ষার আগের রাতে ও সকালে রংপুরের বিভিন্ন স্থান থেকে ১৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ৩ জন রংপুরের সনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, ১১ জন পরিক্ষার্থী এবং ৫ জন ডিভাইস জালিয়াতির সিন্ডিকেটের সদস্য। গ্রেফতারকৃত পরিক্ষার্থীদের মধ্যে ৮ জন নারী পরিক্ষার্থী রয়েছে, যাদের পরিক্ষা শুরুর পূর্বেই পরিক্ষার কেন্দ্র থেকে ডিভাইসসহ আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছে থেকে ১১ টি ডিভাইস, ৮০ টি ফোন ও এডমিট কার্ড উদ্ধার করা হয়। ডিভাইস জালিয়াতি সিন্ডিকেটের সদস্যদের আটক অভিযানে মোট চারটি দল কাজ করে।

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো: মনিরুজ্জামান বলেন, সরকার সকল নিয়োগ পরিক্ষায় সর্বাত্বক সচেতন। তারপরও একটি অসাধু চক্র ডিজিটাল ডিভাইসের অপব্যবহার করে এই জালিয়াতি কাজের সাথে জড়িত। রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ ডিভাইস জালিয়াতি চক্রটিকে পরিক্ষার আগে রাতে, সকালে ও পরিক্ষা শুরুর আগেই কেন্দ্র থেকে আটক করা হয়েছে। তাদের আটকের ফলে পরিক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস করতে পারেনি চক্রটি। এই ঘটনায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের কোন ঘটনা ঘটেনি বলে তিনি নিশ্চিত করেন।

এ বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর রংপুর বিভাগের উপ-পরিচালক মোঃ মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, পরিক্ষা সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের জন্য সকল প্রকার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। পরিক্ষা বাতিলের বিষয় সিদ্ধান্ত মন্ত্রনালয়ের বিষয়। তাছাড়া রংপুর বিভাগীয় কমিশনার বিষয় তত্বাবধান করছেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি ডিবি কাজী মুত্তাকী ইবনু মিনান, ডিসি ক্রাইম আবু মারুফ হোসেন, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর রংপুর বিভাগের উপ-পরিচালক মোঃ মুজাহিদুল ইসলাসহ রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তা।

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

Leave a Reply

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ

© ২০২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রংপুর সংবাদ.কম
Theme Customization By NewsSun