1. rkarimlalmonirhat@gmail.com : Rezaul Karim Manik : Rezaul Karim Manik
  2. kibriyalalmonirhat84@gmail.com : Golam Kibriya : Golam Kibriya
  3. mukulrangpur16@gmail.com : Saiful Islam Mukul : Saiful Islam Mukul
  4. maniklalrangpur@gmail.com : রংপুর সংবাদ : রংপুর সংবাদ
উদ্বোধনের অপেক্ষায় ভূমিহীনদের জন্য নির্মিত ৩০০ ঘর | রংপুর সংবাদ
বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ১১:৪১ অপরাহ্ন

উদ্বোধনের অপেক্ষায় ভূমিহীনদের জন্য নির্মিত ৩০০ ঘর

ইব্রাহিম সুজন,নীলফামারী প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : রবিবার, ৩০ মে, ২০২১

নীলফামারীর জলঢাকায় মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে গৃহহীন ৩০০ পরিবারের জন্য ঘর তৈরির কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, এসব ভূমি ও ঘর উপকারভোগীদের বুঝিয়ে দেওয়ার কার্যক্রম অল্প কয়েকদিনের মধ্যেই শুরু হবে।

এদিকে অপেক্ষার প্রহর গুণছে প্রধানমন্ত্রী উপহার পাওয়া গৃহহীন ও ভূমিহীন পরিবারগুলো। ঘরে বসবাস করার আগেই সন্তোষ প্রকাশ করেছেন ভূমিহীন পরিবারগুলো। সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে যত দ্রুত সম্ভব তারা প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘরে বসবাস করতে চান।

দ্রুত সময়ের মধ্যে ঘর নির্মাণ সম্পন্ন করার জন্য বিরামহীন কাজ করে যাচ্ছে উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

জলঢাকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুব হাসান বলেন, আমরা হতদরিদ্রদের জন্য প্রাপ্ত ঘর নির্মাণের জন্য আমরা সার্বক্ষণিক তদারকি করছি। ঘর প্রদানের ক্ষেত্রে উপকারভোগী নির্বাচনের ক্ষেত্রেও আমরা সঠিকভাবে যাচাইবাছাই করছি। যারা আসল ভূমিহীন তারাই এই সুবিধার আওতায় এসেছেন। এই আশ্রয়ন প্রকল্পের ভূমিহীনদের জন্য খেলার মাঠ, সুপেয় পানি, বিদ্যুৎ, খোলা জায়গা, নদীর পাড়ে বৃক্ষরোপণ করে সবুজ বেষ্টনী তৈরিসহ সব ধরনের পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে।

উপকারভোগী সুশীলা বালা রানী বলেন, কোনো জমিজমা না থাকায় স্বামীর মৃত্যুর পরে দুই সন্তানসহ বিভিন্ন সময় মানুষের বাড়িতে থাকতাম। আজ এ জায়গায়, কাল আরেক জায়গায় থাকতাম। বিভিন্ন সময় মেম্বর-চেয়ারম্যানদের কাছে থাকার জন্য একটু জায়গা চেয়েছিলাম। প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে এই ঘর পাবো চেনে আমি খুব খুশি হয়েছি।

সোনালী রানী বলেন, কোনোদিন ভাবিনি পাকা ঘরে বসবাস করবো। প্রধানমন্ত্রী আমাকে যে ঘর দিল এতে আমি খুব খুশি। দুই রুমের এই ঘরে পরিবার-পরিজন নিয়ে শান্তিতে ঘুমাতে পারব। বৃষ্টি আসলে এখন আর পলিথিন ঠিক করতে হবে না। না ঘুমিয়ে এক জায়গায় বসে থাকতে হবে না। একই ধরনের অনুভূতি জানিয়েছেন অনেক ভূমিহীনরা ।
মিরগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বলেন, আমার এলাকায় যে আশ্রয়ন প্রকল্প হয়েছে তাতে আমরা খুব খুশি। বিনামূল্যে দুই শতক জমিসহ পাকা ঘর পেয়ে এলাকার ভূমিহীনরা খুব খুশি। এই
ঘরে তারা খুব শান্তিতে বসবাস করতে পারবেন।

“আশ্রয়নের অধিকার-শেখ হাসিনার উপহার এই স্লোগান নিয়ে আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায় উপজেলার কৈমারী ইউনিয়নের বালাপাড়ায় ১শ, মিরগঞ্জ ইউনিয়নের পাতাইবাড়ী ডাঙ্গায় ১শত, ৩০ শিমুলবাড়ী ইউনিয়ন, বান্নিরডাঙ্গায় ৭০ টি সর্বমোট ৩০০টি ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে। খুব অল্প সময়ের মধ্যে নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে জানিয়েছেন উপজেলা প্রশাসন।

জলঢাকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো.মাহাবুব হাসান জানান, আমরা সরকারের খাস জমিতে ভূমি ও গৃহহীন হতদরিদ্রদের ৩০০টি ঘর নির্মাণ করছি। প্রতিটি ঘরের ব্যয়ের সাথে কাজের মান যেন ঠিক থাকে সেজন্য সার্বক্ষণিক তদারকি করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, ঘর দেওয়ার জন্য উপকারভোগী নির্বাচনের ক্ষেত্রেও আমরা সঠিকভাবে যাচাই-বাছাই করেছি। যারা প্রকৃত ভূমিহীন তারাই এই সুবিধার আওতায় এসেছেন। খুব শিগগিরই তাদের মধ্যেই ঘরের দলিল ও চাবি হস্তান্তর করা হবে।

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ

© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রংপুর সংবাদ.কম
Theme Customization By NewsSun