রংপুর সংবাদ » বৃদ্ধাশ্রমে স্বামীর সহকারীকে বিয়ে করলেন বৃদ্ধা  

বৃদ্ধাশ্রমে স্বামীর সহকারীকে বিয়ে করলেন বৃদ্ধা  


রংপুর সংবাদ ডিসেম্বর ৩০, ২০১৯, ২:৩৬ অপরাহ্ন
বৃদ্ধাশ্রমে স্বামীর সহকারীকে বিয়ে করলেন বৃদ্ধা   

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

বয়স হয়ে গেলে পরিবার থেকে লাঞ্ছনার শিকার হন কেউ কেউ। মেয়েরা শ্বশুর-শাশুড়ি নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন আর ছেলেরা মুখ ফিরিয়ে নেন জননী-জনক থেকে।

তাই দায়িত্ব নেয়ার লোকের অভাবে শেষ বয়সে একটু আশ্রয় পেতে বৃদ্ধাশ্রমে ঠাঁই নেন সেসব বৃদ্ধ-বৃদ্ধা।

সেখানে গিয়ে সমবয়সী বৃদ্ধদের সঙ্গে বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে তাদের। তবে শুধু বন্ধুত্বই নয়; বৃদ্ধাশ্রমে নতুন বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন এক বৃদ্ধ।

ছেলেমেয়েরা তাকে ছুড়ে ফেলে দিয়েছে তো কি হয়েছে, সে কষ্টের ছাই চাপা পড়ল তার বৃদ্ধাশ্রমের এক বৃদ্ধাকে পেয়ে। মালাবদল করে একে অপরকে জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিয়েছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের কর্নাটক রাজ্যের এক বৃদ্ধাশ্রমে। সেখানে লক্ষ্মী আমল নামে এক ষাটোর্ধ্ব বৃদ্ধাকে আয়োজন করে বিয়ে করেছেন কোচানিয়ান মেনন নামে এক বৃদ্ধ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, স্বামীর মৃত্যুর পর একা হয়ে পড়েন লক্ষ্মী দেবী। কর্নাটকের ওই বৃদ্ধাশ্রমে চলে আসেন তিনি। আর পরিবারের থেকে লাঞ্ছনার শিকার হয়ে মাথার ওপর ছাদ খুঁজতে গিয়ে সেই আশ্রমে ঠাঁই নেন কোচানিয়ান মেনন।

দুজন দুজনকে চিনতে পারেন। এককালে লক্ষ্মী দেবীর স্বামীর সহকারী হিসেবে কাজ করতেন কোচানিয়ান মেনন।

বন্ধুত্ব হয় তাদের। ফেলে আসা জীবনের গল্প বলতে বলতে দুজনের মধ্যে সখ্য গড়ে ওঠে। সুখ-দুঃখ আদান-প্রদান করতে গিয়ে একসময় একে অপরের প্রেমে পড়ে যান। আবার নতুন করে সংসার পাতার ইচ্ছা জাগে তাদের। তাদের সেই প্রেমকে পরিণতির দিকে নিয়ে যান আশ্রমটির অন্য বৃদ্ধরা। বৃদ্ধাশ্রমেই তাদের বিয়ে হয়।

সংবাদমাধ্যমটি বলছে, বৃদ্ধাশ্রমে গায়েহলুদ থেকে শুরু করে জমকালো আয়োজন করে বিয়ে হয়েছে লক্ষ্মী ও মেননের। শনিবার এ বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন তারা। কর্নাটক রাজ্যের মন্ত্রী ভিএস শিবকুমার এই প্রবীণ জুটির বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন।

লাল বেনারসি পরে কনের সিংহাসনে বসে আছেন লক্ষ্মী। পাশের সিংহাসনে হাসিমুখে মেনন। আশ্রমের অন্যান্য বৃদ্ধ-বৃদ্ধা তাদের ঘিরে রয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ জুটির বিয়ের এমন কয়েকটি দৃশ্য ভাইরাল হয়েছে। নবদম্পতিকে বিয়ের শুভেচ্ছা জানিয়ে তাদের প্রশংসা করেছেন নেটিজেনরা।