রংপুর সংবাদ » এবার এশিয়া একাদশে খেলোয়াড় দেবে না পাকিস্তান

এবার এশিয়া একাদশে খেলোয়াড় দেবে না পাকিস্তান


রংপুর সংবাদ ডিসেম্বর ২৭, ২০১৯, ২:৪৯ অপরাহ্ন
এবার এশিয়া একাদশে খেলোয়াড় দেবে না পাকিস্তান

স্পোর্টস ডেস্কঃ

বিশ্ব একাদশের বিপক্ষে খেলতে এশিয়া একাদশে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের দিতে রাজি হয়নি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) কারণে তাদের ক্রিকেটারদের দিতে পিসিবি রাজি নয়। গতকাল বিসিবিপ্রধান নাজমুল হাসান সাংবাদিকদের এমনটিই জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বিশ্ব একাদশ ও এশিয়া একাদশের মধ্যে দুটি প্রীতি ম্যাচ আয়োজন করবে বিসিবি, যা ইতিমধ্যে আইসিসির স্বীকৃতি পেয়েছে।

এ দুই ম্যাচের জন্য এশিয়া একাদশে সাত ভারতীয় ক্রিকেটারকে পছন্দ করেছে বিসিবি । তাদের মধ্যে থেকে পাঁচজনকে বেছে নেয়া হবে বলে সূত্র জানিয়েছে।

এদিকে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, এশিয়া একাদশে পাক ক্রিকেটারকে নেয়া হলে ভারত তাদের খেলোয়াড়দের পাঠাবে না।

আর এসব সংবাদের মধ্যেই জানা গেল, এশিয়া একাদশে যুক্ত হচ্ছে না পাকিস্তানের কোনো ক্রিকেটারও।

এর বিস্তারিত কারণ হিসেবে বিসিবি সভাপতি জানিয়েছেন, ‘১৭ তারিখে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন। তাই ১৮ থেকে ২২ তারিখের মধ্যে ওই দুটি ম্যাচ সম্পন্ন করতে সরকার থেকে সময় দেয়া হয়েছে। এ সময় অপরিবর্তনযোগ্য।

পাপন যোগ করেন, পাকিস্তান বলেছে– ওই পাঁচ দিন সময়ে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা অন্য কোথায় যেতে পারবে না। কারণ এ সময়টা পিএসএলের সঙ্গে মিলে যাচ্ছে। তাই ওরা তারিখটা পরিবর্তন করতে বলেছিল আমাদের। আমরা জানিয়েছি, পরিবর্তন করা সম্ভব নয়। এর পর পাকিস্তান কোনো সাড়া দেয়নি।’

এদিকে জানা গেছে, বিশ্ব একাদশ বনাম এশিয়া একাদশের ম্যাচ খেলতে মাহেন্দ্র সিং ধোনি, বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা, যাসপ্রিত বুমরাহ, হার্দিক পান্ডিয়া, ভুবনেশ্বর কুমার ও রবিন্দ্র জাদেজাকে চেয়ে বিসিসিআইয়ের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে বিসিবি। এদের মধ্য থেকে পাঁচজনকে পাঠাবে বিসিসিআই।

উল্লেখ্য, প্রীতি ম্যাচ দুটির একটি সম্প্রতি নির্মিত বিশ্বের সবচেয়ে বেশি দর্শক ধারণক্ষমতাসম্পন্ন স্টেডিয়ামে ভারতের সর্দার প্যাটেল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এ ম্যাচ দিয়েই স্টেডিয়ামটির অভিষেক ঘটবে।

এদিকে পিসিবিপ্রধান এহসান মানি জানিয়েছেন, পাকিস্তানে ক্রিকেট খেলার পরিবেশ রয়েছে। সম্প্রতি পাকিস্তান সফর করেছে শ্রীলংকা। বরং এনআরসি ইস্যুতে ভারত এখন উত্তাল। এ সময় ভারতে খেলোয়াড় পাঠানো নিরাপদ নয় বলে মন্তব্য করেন এহসান মানি।