রংপুর সংবাদ » রংপুর সহ উত্তরাঞ্চলে প্রচন্ড শৈত্য প্রবাহ

রংপুর সহ উত্তরাঞ্চলে প্রচন্ড শৈত্য প্রবাহ


রংপুর সংবাদ ডিসেম্বর ২১, ২০১৯, ৬:৫৬ অপরাহ্ন
রংপুর সহ উত্তরাঞ্চলে প্রচন্ড শৈত্য প্রবাহ

রংপুর প্রতিনিধিঃ

রংপুর সহ উত্তরাঞ্চলে প্রচন্ড শৈত্য প্রবাহ শুরু হয়েছে। ৪ দিন ধরে সুর্যের আলো দেখা যাচ্ছে না। এক দিকে শীত অন্যদিকে ঘন কুয়াশার কারনে যান চলাচলে বিঘœ ঘটছে।

শৈত্য প্রবাহের সাথে কনকনে বাতাস শীতের তীব্রতাকে বহুগুনে বাড়িয়ে দিয়েছে। এদিকে শৈত্য প্রবাহের কারনে নিউমোনিয়া আর রোটা ভাইরাস সহ বিভিন্ন রোগ ব্যাপক ভাবে ছড়িয়ে পড়েছে।

গত ৪ দিনে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৫ শিশু মারা গেছে বলে হাসপাতাল সুত্র নিশ্চিত করেছে।
গত ৪ দিন ধরে রংপুর সহ উত্তরাঞ্চলে প্রচন্ড শৈত্য প্রবাহ অব্যাহত রয়েছে।

বিশেষ করে কনকনে বাতাস শীতের তীব্রতা বহুগুনে বাড়িয়ে দিয়েছে। রংপুর আবহাওয়া অফিস সুত্রে জানা গেছে শনিবার রংপুরে সর্বনি¤œ তাপমাত্রা ছিলো ১০ দশমিক ৪ ডিগ্রী সেলসিয়াস। এদিকে শীত জনিত কারনে নিউমোনিয়া ভাইরাস জ্বর, রোটা ভাইরাস, ডায়রিয়া ,শ্বাস কষ্ট সহ বিভিন্ন রোগ বালাই ব্যাপক ভাবে ছড়িয়ে পড়েছে।

উত্তরাঞ্চলের একমাত্র চিকিৎসা কেন্দ্র রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রতিদিনই গড়ে শতাধিক শিশু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের বর্হি বিভাগে চিকিৎসা নিচ্ছেন। মুমুর্ষ অবস্থায় অনেক শিশু হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে।

সার্বিক বিষয়ে জানতে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ডা, শাহাদত হোসেনের সাথে দেখা করলে তিনি গত ৪ দিনে ৫ শিশু মারা যাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, রংপুর সহ উত্তরাঞ্চলে প্রচন্ড শীতে নিউমোনিয়া রোটা ভাইরাস সহ বিভিন্ন রোগ বালাই ব্যাপক ভাবে ছড়িয়ে পড়েছে।

তিনি বলেন, এক হাজার বেডের এ হাসপাতালে সব সময় দুই হাজারেও বেশী রোগী থাকে ফলে তাদের করার কিছু নেই। তিনি শিশুদের দিনের বেলা বাসা থেকে বের না করা এবং গরম কাপড় ছাড়া কোন অবস্থাতেই ঘরের বাইরে বের না হবার উপদেশ দিয়েছেন।

তিনি বলেন, গত ৪ দিনের মৃদু শৈত্য প্রবাহের কারনে শুধুমাত্র শিশু ওয়ার্ডেই ডায়রিয়া,নিউমোনিয়া, ও শ্বাসকষ্ট রোগে আক্রান্ত হয়ে ১৭২ জন রোগী ভর্তি হয়েছে। এদের মধ্যে ৫ শিশু মারা গেছে। তাদের বাড়ি বিভিন্ন জেলায় বলে তিনি জানান।