রংপুর সংবাদ » করোনার ভয়াবহ তাণ্ডব, আক্রান্ত ছাড়াল ৬ কোটি ১৩ লাখ

করোনার ভয়াবহ তাণ্ডব, আক্রান্ত ছাড়াল ৬ কোটি ১৩ লাখ


রংপুর সংবাদ নভেম্বর ২৭, ২০২০, ১২:৩৭ অপরাহ্ন
করোনার ভয়াবহ তাণ্ডব, আক্রান্ত ছাড়াল ৬ কোটি ১৩ লাখ

রংপুর সংবাদ ডেস্কঃ
বিশ্বজুড়ে থামছেই না প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের তাণ্ডব। মাঝে সংক্রমণ কিছুটা কমলেও আবারও তা ভয়ঙ্কর রূপ নিয়েছে। বিশ্বব্যাপী চলছে মহামারী করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ।  

এই পর্যায়ে বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৬ কোটি ১৩ লাখ।

আর এ মহামারীতে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৪ লাখ ৩৭ হাজার।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, শুক্রবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ১৪ লাখ ৩৭ হাজার ৬৩৫ জনের এবং আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ কোটি ১৩ লাখ ২ হাজার ৩৭ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪ কোটি ২৩ লাখ ৯৩ হাজার ১২৩ জন।

বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, ২ লাখ ৬৯ হাজার ৫৫৫ জন।

বিশ্বে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যাও এই দেশটিতে। বিশ্বের ক্ষমতাধর এ দেশটিতে এখন পর্যন্ত এক কোটি ৩২ লাখ ৪৮ হাজার ৬৭৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন।  

করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় দ্বিতীয় এবং মৃতের সংখ্যায় তৃতীয় অবস্থানে আছে ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৯৩ লাখ ৯ হাজার ৮৭১ জন।

এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন এক লাখ ৩৫ হাজার ৭৫২ জন।

করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় তৃতীয় এবং মৃতের সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৬২ লাখ ৪ হাজার ৫৭০ জন। এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন এক লাখ ৭১ হাজার ৪৯৭ জন।

করোনায় মৃতের সংখ্যার দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে মেক্সিকো।

দেশটিতে এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ লাখ ৪ হাজার ২৪২ জন। আর এ পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে ১০ লাখ ৭৮ হাজার ৫৯৪ জন।

আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে উঠে এসেছে রাশিয়া। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ২১ লাখ ৮৭ হাজার ৯৯০ জন। আর মৃতের সংখ্যা ৩৮ হাজার ৬২ জন।

সুস্থতার দিক থেকে প্রথম অবস্থানে আছে ভারত (৮৭ লাখ ১৭ হাজার ৭০৯ জন), দ্বিতীয় অবস্থানে আছে যুক্তরাষ্ট্র (৭৮ লাখ ৪৬ হাজার ৮৭২ জন) এবং তৃতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল (৫৫ লাখ ২৮ হাজার ৫৯৯ জন)।