সূর্যের দেখা মেলে না | রংপুর সংবাদ
  1. rkarimlalmonirhat@gmail.com : রংপুর সংবাদ : রংপুর সংবাদ
  2. kibriyalalmonirhat84@gmail.com : Golam Kibriya : Golam Kibriya
  3. maniklalrangpur@gmail.com : রংপুর সংবাদ : Manik Ranpur
  4. mukulrangpur16@gmail.com : Saiful Islam Mukul : Saiful Islam Mukul
সূর্যের দেখা মেলে না | রংপুর সংবাদ
বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ১১:৪২ অপরাহ্ন



সূর্যের দেখা মেলে না

রংপুর সংবাদ
  • প্রকাশকালঃ বুধবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ১৩

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:

উত্তরাঞ্চলের সীমান্ত ঘেঁষা কুড়িগ্রামে বিরাজ করছে পৌষের ঠাণ্ডা। পৌষ মাসের প্রথম থেকে এখানে শুরু হয়েছে ঠাণ্ডার প্রকোপ। বিকেল ঘনিয়ে আসতেই বৃদ্ধি পাচ্ছে ঠাণ্ডার পরিধি। এর সঙ্গে কুয়াশাচ্ছন্ন হচ্ছে জনপদ।

কুড়িগ্রামের ঠাণ্ডা নিয়ে আবহাওয়া দফতর খবর দিচ্ছে ঠাণ্ডা বাড়ার। ডিসেম্বরের ২০ তারিখের পর কুড়িগ্রামে শৈত্য প্রবাহ বিরাজ করবে। এতে এ জনপদে ঠাণ্ডার প্রকোপও বৃদ্ধি পাবে এমন বার্তা শোনা যাচ্ছে। শৈত্য প্রবাহের প্রভাবে এখানে ঠাণ্ডার প্রকোপ বলেও জানা গেছে।

এখানে সন্ধ্যার পর কুয়াশার চাদরে ঢেকে যাচ্ছে মাঠ-ঘাট। রাতে অগ্রভাগ জুড়ে বৃষ্টির মতো পড়ছে কুয়াশা। এতে ঠাণ্ডাও বাড়ছে দ্বিগুণ। রাতের বেলা ঠাণ্ডার প্রকোপ সকাল ১১টা পর্যন্ত দীর্ঘস্থায়ী থাকছে এখানে। মাঝে মাঝে পুরোদিনই থাকছে ঠাণ্ডার স্থায়িত্ব।

এরমধ্যে পৌষের দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার ভোর সকাল থেকে কুড়িগ্রামের সর্বত্র বিরাজ করছে ঘন কুয়াশার সঙ্গে ঠাণ্ডা। মাঝে মধ্যে হিম বাতাস বয়ে যাচ্ছে। ঠাণ্ডার তীব্রতায় কাতর হয়ে পড়েছে জনজীবন। সকাল ১১টা পার হলেও দেখা মেলেনি সূর্যের। ভুক্তভোগীরা মোটা কাপড় পড়ে ঠাণ্ডা নিবারণের চেষ্টা করছেন। সকালে গ্রামাঞ্চলের মানুষরা বাড়ির পাশে আগুনের কুন্ডলি জ্বালিয়ে ঠাণ্ডা নিবারণের চেষ্টা করছেন। অনেকেই ঠাণ্ডায় ঘর থেকে বের হতে ভয় পাচ্ছেন।

স্থানীয় শমশের আলী নামের এক বৃদ্ধ জানান, পৌষ মাস পড়ার সঙ্গে সঙ্গে কুড়িগ্রামে ঠাণ্ডা বাড়ছে। আমরা মোটা কাপড় পড়ে ও সকালে বাড়িতে আগুনের কুন্ডলি জ্বালিয়ে ঠাণ্ডা নিবারণের চেষ্টা করছি।

স্থানীয় মাদরাসা শিক্ষার্থী উম্মে হাফসা জানান, কুড়িগ্রামে ঠাণ্ডা বেড়ে যাচ্ছে। ঠাণ্ডার কারণে মাদরাসা যেতে ভয় পাচ্ছি। ভোরে ওজু ও নামাজে সমস্যা হচ্ছে। গৃহিণী শিউলি বেগম জানান, কুড়িগ্রামে প্রতিনিয়িত বৃদ্ধি পাচ্ছে ঠাণ্ডা।

কুড়িগ্রাম রাজারহাট আবাহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুবল চন্দ্র সরকার রংপুর সংবাদকে বলেন, কুড়িগ্রামে ঠাণ্ডা বাড়ছে। ঘন কুয়াশার সঙ্গে হিম বাতাসপূর্ণ আবহাওয়া বিরাজ করছে। মঙ্গলবার সকালে কুড়িগ্রাম জনপদে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তিনি আরো বলেন, ডিসেম্বরের ২০ তারিখের পর এখানে শৈত্যপ্রবাহ বিরাজ করতে পারে। শৈত্যপ্রবাহের আগাম পূর্বাভাস হিসেবে কুড়িগ্রামে মঙ্গলবারের ঘন কুয়াশা ও ঠাণ্ডার প্রকোপ থাকবে বলেও জানান তিনি।



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ





© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রংপুর সংবাদ