মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:৩৫ অপরাহ্ন

ওসি কুড়িয়ে পাওয়া শিশুটির নাম রাখলেন বিজয়

রংপুর সংবাদ
  • প্রকাশের সময়ঃ শুক্রবার, ২০ নভেম্বর, ২০২০

 

ইব্রাহিম সুজন,নীলফামারী প্রতিনিধিঃ নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ কুড়িয়ে পাওয়া শিশুটির নাম রাখলেন “বিজয়”। মৃত্যুকে জয় করে নবজাতকটি সুন্দর পৃথিবীতে বেঁচে আছে, সুস্থ্য আছে, আগামীতে মেধাবী ও সকল বাধা বিপত্তি জয় করে নিজেকে বিশ্বে মিলেয়ে ধরার প্রত্যাশায় “বিজয়” নাম রেখেছে ওসি আব্দুল আউয়াল।
তিনি কুড়িয়ে পাওয়া ছেলে নবজাতককে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। নিজেকে নবজাতকটির পাহারাদার হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। আবেগে আপ্লিত হয়ে তিনি এ ঘটনাটি নিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। এতে শ’ শ’ মানুষ তাকে স্যালুট ও অভিনন্দন জানিয়ে মন্তব্যও দিয়েছেন।
স্ট্যাটাসটিতে তিনি লিখেছেন- “ফিরছিলাম থানার নিতাই ইউনিয়ন থেকে জরুরী মিটিং শেষে। খবর পাই একটি পরিচয়হীন নবজাতকে (ছেলে) নদীর পাড় থেকে এক পুত্র সন্তানহীন দম্পতি কুড়িয়ে পেয়ে নিজ হেফাজতে রেখেছেন সকাল থেকে। ক্ষিধা, তৃষ্ণা আর ক্লান্তিকে অগ্রাহ্য করে দ্রুত গিয়ে পৌছি ঘটনাস্থলে, অনুমান ১৫ কিঃ মিঃ দূরে, দহবন নামক নদীর তীরঘেষা ছোট্ট একটি গ্রামে, গাড়ীতে, কখনও হেটে, কখনও দৌড়ে, আশংকা বাবুটি ভাল আছেতো ? অবশেষে পুলিশ হেফাজতে।
লোভ সংবরণ করতে না পেয়ে নেই কোলে তুলে। সীমাহীন স্বর্গীয় অনুভুতি। এস.পি স্যারের সংগে আলোচনা শেষে দূত হাসপাতালে। ডাক্তার পরীক্ষা শেষে বললেন সব ঠিক আছে। ভাল থাকুক সে। সামনে বিজয়ের মাস। হিন্দু কিংবা মুসলিম নেই তার কোন জাত। মৃত্যু কে আলিঙ্গন করে সে আজ বিজয়ী। তাই ওর নাম দিলাম,,,, “বিজয়”। কেউ তোমার পিতা হতে না চাইলে না হোক। তুমি আর একা নও। অনেক কেঁদেছ, তাই না বিজয়। অভিসম্পাত করেছিলে কি? দরকার নাই। এই পৃথিবীর মালিক তুমি। আমরা তোমার পাহারাদার।
স্ট্যাটাসটি দেয়া মাত্রই নজরে পরে শ’ শ’ ব্যক্তির। তারা ওসি’কে স্যালুট ও অভিনন্দন জানাতে কমতি করেননি। পাশাপাশি নবজাতকটির ভবিষ্যৎ মঙ্গল কামনা করেছেন। বেলায়েত হোসেন বিপু নামে একজন লিখেছেন-ভালোবাসা অবিরাম, বিজয় নামটাই স্মরণ করে দিবে। ভালো থাকবেন। সিরাজুল ইসলাম বিদ্যুৎ নামে একজন লিখেছেন- ভাই, বাচ্চা টা যদি আমাকে দান আমি নিবো, কারণ আমার ছেলে সন্তান নেই। ধন্যবাদ আপনাকে,,,, এর উত্তরে রিশাদ হোসেন নামে একজন লিখেছেন- হয়তো আপনি তাকে পাবেন না….সে এখন দেশের জন্য থাকবে….।
শরিফ মিয়া নামে একজন লিখেছেন- ভালো লাগলো স্যার। বিজয়ের বিজয় হোক। শরিফুল ইসলাম শরিফ নামে একজন লিখেছেন- সেলুট স্যার। এটাই হলো বৃহত্তর মানবতা সেবা। সামনে বিজয়ের মাসে আর একটি বিজয় অর্জন করলেন। যেখানে আপনি আছেন সেখানে সে একা নয়, এটা নিশ্চিত। ওই শিশু বাচ্ছা সহ সবার জন্য শুভ কামনা রইল। মাহমুদ শরিফ নামে একজন লিখেছেন- অতি চমৎকার অভিব্যক্তি। স্যালুট আপনাকে। বিজয়ের জন্য অনেক শুভ কামনা। মহান আল্লাহ পাক ওকে ভালো রাখুন। এম এ এইচ জাকারিয়়া লিখেছেন- বিজয়ের জন্য শুভ কামনা। আজকে বিজয় কে যিনি পরিচিতি করিয়ে দিয়েছেন -সেই মহান ব্যক্তি তিনি আমাদের কিশোরগঞ্জ থানার ওসি মহোদয় -সবার পক্ষ থেকে স্যালুট। মোঃ মোরশেদুল ইসলাম লিখেছেন-মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার কিশোরগঞ্জের পুলিশ হয়েছে জনতার। সাবাস পুলিশ অফিসার আব্দুল আউয়াল।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আবু শফি মাহমুদ বলেন- নবজাতকটি সুস্থ্য আছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ রোকসানা বেগম সার্বক্ষনিক নবজাতকটির খোঁজখবর নিচ্ছেন।
কিশোরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল আউয়াল জানান- নবজাতকটি রাষ্ট্রের সম্পদ হিসেবে আমরা পরিচর্যা করছি। তার জন্য নতুন কাপড়, কম্বল ও শিশু খাদ্য দেয়া হয়েছে। একজন মহিলা কনস্টবল রাখা হয়েছে। যে মা’ নবজাতকটি পেয়েছেন তিনি নবজাতকটির সাথে হাসপাতালে রয়েছে। তিনি আরও বলেন-আমার সন্তানের মতই খোঁজখবর রাখছি। কেউ নবজাতকটিকে না নিলে আমি আমার সন্তানের মতই তাকে লালন-পালন করবো। কেউ নিলে সারা জীবন তার খোঁজখবরও রাখার প্রত্যাশা করেন তিনি। অনেকে নবজাতকটি নেয়ার ইচ্ছা পোষণ করেছে। মৃত্যুকে জয় করা নবজাতকটি আগামীতে বিশ্বে নিজেকে মিলিয়ে ধরে বিজয় অর্জন করবে এই প্রত্যাশা আমার।

Print Friendly, PDF & Email
এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © Rangpur Sangbad
Design & Develop By RSK HOST