1. rkarimlalmonirhat@gmail.com : Rezaul Karim Manik : Rezaul Karim Manik
  2. maniklalrangpur@gmail.com : রংপুর সংবাদ : রংপুর সংবাদ
পঞ্চগড়ে গন্ধগোকুলের ছানা উদ্ধার - রংপুর সংবাদ
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ১১:৫৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মুইও তাড়াতাড়ি তোর কাছোত আসিম’ বলে সাঈদকে চিরবিদায় দিলেন মা বৃহস্পতিবার সারাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা আন্দোলনকারীদের ছয় শিক্ষার্থী হত্যায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন করতে হবে : জিএম কাদের সর্বোচ্চ আদালতের রায়ে হতাশ হতে হবে না:প্রধানমন্ত্রী হাতীবান্ধায় তিস্তার তোড়ে বিলীন কমিউনিটি ক্লিনিক নেতা-কর্মীদের সতর্ক থাকার আহ্বান শেখ হাসিনার, জানালেন কাদের রংপুরে নিহত শিক্ষার্থী আবু সাঈদের জানাজা-দাফন সম্পন্ন ক্যাম্পাস ছাড়ছেন রংপুর বেরোবি শিক্ষার্থীরা, সতর্ক অবস্থানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বেরোবি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা শিক্ষার্থীদের ধাওয়া খেয়ে ক্যাম্পাস ছেড়েছে বেরোবি ছাত্রলীগ

পঞ্চগড়ে গন্ধগোকুলের ছানা উদ্ধার

আবু সালেহ মো রায়হান,পঞ্চগড় প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১৯ মে, ২০২১
  • ১১৩ জন নিউজটি পড়েছেন

পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলার দেবগনড় এলাকায় বিলুপ্ত প্রজাতির গন্ধগোকুলের তিনটি ছানা উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার বিকেলে দেবনগড় ইউনিয়নের ব্রহ্মতল এলাকার একটি মরিচ ক্ষেত থেকে ছানা তিনটি উদ্ধার করে স্থানীয় এক ছাত্রলীগ নেতা।

স্থানীয়রা জানায়, বুধবার বিকেলে দেবগনড় ইউনিয়নের ব্রহ্মতল এলাকার ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি নুর আলমের মরিচ ক্ষেতে মরিচ তুলছিলেন কয়েকজন নারী। মরিচ তোলার এক পর্যায়ে ক্ষেতের মাঝখানে একটি গর্তে গন্ধগোকুল দেখতে পান তারা। মানুষের উপস্থিতি টের পেয়ে মা গন্ধগোকুলটি একটি ছানা নিয়ে পালিয়ে যায়। গর্তে থাকা বাকি ৩ টি ছানা খাদ্য সংকটে অসুস্থ্য হয়ে পড়েছিল। পরে ছাত্রলীগ নেতা নুর আলম ছানা ৩ টিকে উদ্ধার করে বাড়ি এনে তাদের খাবার দেন। ছানা ৩ টির গায়ের রঙ ধূসরের মাঝে কালো দাগটানা। এদিকে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে গন্ধগোকুলের ছানা দেখতে ভিড় জমায় স্থানীয়রা।

নুর আলম জানান, ছানা ৩ টি খাদ্য সংকটে হয়তো অসুস্থ্য হয়ে পড়েছিল। নড়াচড়া করতে পারছিল না। আমি তাদের বাড়িতে এনে খাবার দেই। এখন তারা পুরোপুরি সুস্থ্য। বনবিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছি। তাদের পরামর্শ নিয়ে ছানা তিনটির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবো।
বনবিভাগ সূত্রে জানা যায়, গন্ধগোকুল নিশাচর প্রাণী। খাটাশের বিভিন্ন প্রজাতির মধ্যে এরাই মানুষের কাছাকাছি থাকে। মূলত ফলখেকো হলেও ছোট প্রাণী এবং তাল-খেজুরের রস খায়। এরা ইঁদুর ও ফসলের ক্ষতিকর পোকামাকড় খেয়ে কৃষকের উপকার করে থাকে। বর্তমানে এই প্রজাতিটি বাংলাদেশে সংরক্ষিত।

সামাজিক বনবিভাগ পঞ্চগড়ের রেঞ্জ কর্মকর্তা হৃষিকেশ চন্দ্র রায় বলেন, গন্ধগোকুল আমাদের দেশে বিলুপ্ত প্রজাতির প্রাণী। আপনার মাধ্যমে বিষয়টি জানলাম। বিস্তারিত তথ্য পেলে আমরা জীববৈচিত্র সংরক্ষণ দপ্তরের কর্মকর্তাদের জানাতে পারবো।

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

Leave a Reply

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ

© ২০২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রংপুর সংবাদ.কম
Theme Customization By NewsSun