নৌকা মার্কার প্রার্থী হিসেবে মাত্র ২৫ বছর ১ মাস ১ দিন বয়সে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

গত ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মাহমুদ ওমর চিশতি ৬ হাজার ৩১৭ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে বর্তমান চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন আলাল (হাতপাখা) পেয়েছেন ৪ হাজার ৭২৩ ভোট।

 

১৯৯৬ সালে জন্মগ্রহণ করা মাহমুদ ওমর চিশতি ২০১৩ সালে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি, ২০১৫ সালে মানবিক বিভাগ থেকে এইচএসসি ও ২০১৯ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ থেকে স্নাতক পাস করেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের ছাত্রবৃত্তি বিষয়ক সম্পাদক ও লালমনিরহাট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি ছিলেন চিশতি। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী।

জানা গেছে, মাহমুদ ওমর চিশতি পারিবারিকভাবেই আওয়ামী লীগের সঙ্গে জড়িত। ১৯৯৬ সালের ১০ অক্টোবর উপজেলার কমলাবাড়ী ইউনিয়নে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা শামসুল ইসলাম সুরুজ। শামসুল ইসলাম সুরুজ ছিলেন কমলাবাড়ী ইউনিয়নের আমৃত্যু চেয়ারম্যান। তিনি ছিলেন লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। চিশতির বয়স যখন ৭ বছর তখনেই তার বাবা শামসুল ইসলাম সুরুজকে  ২০০৩ সালের ২২ ডিসেম্বর নিজ বাড়ির পাশেই দুর্বৃত্তরা কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করে।

তার বাবার মৃত্যুর পর তার চাচা আদিতমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শওকত আলী কমলাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। 

আরও জানা যায়, সম্প্রতি তার চাচার মৃত্যুর পর মাহমুদ ওমর চিশতি বাবা ও চাচার পরে তিনি ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন। এ ছাড়া চিশতির বড় ভাই ফারুক ইমরুল কায়েস আদিতমারী উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান।

মাহমুদ ওমর চিশতি প্রথমে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েও পাননি। প্রথম দফায় সেখানে অন্য একপ্রার্থীকে দলীয় মনোনয়ন দেয় আ. লীগ। পরে পরিবর্তন করে মনোনয়ন পান তিনি।

আদিতমারী উপজেলা নির্বাচন অফিসার ফারুক আহম্মেদের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, ‘জানা মতে উপজেলায় মাহমুদ ওমর চিশতি কম বয়সের একজন চেয়ারম্যান। তবে সারা দেশে তিনিই কম বয়সী কি-না সেটা তিনি জানেন না। ’