রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ০৯:০৪ পূর্বাহ্ন

ঈদের আনন্দ নেই বানভাসীদের মাঝে

রংপুর সংবাদ
  • প্রকাশের সময়ঃ শনিবার, ১ আগস্ট, ২০২০

ভুবন কুমার শীল, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃআজ দেড়মাস থেকে বাঁধের উপর আশ্রয় নিয়ে আছে মরিয়ম বেগম। এখন তার ঘরে এক বুক পানি। ঈদের দিন তার ছেলে ১শটাকার বয়লার মুরগী মাংস এনেছে। তাই রান্না করছে। শুধু মরিয়ম বেগম নয়। পুরো ঈদের আনন্দ নেই কুড়িগ্রামের বানভাসী মানুষের মাঝে।

করোনায় কাজ হারানো এসব মানুষ দীর্ঘ বন্যার সাথে যুদ্ধ করে এখন অসহায়।অনেক পরিবারে জোগার হয়নি সামান্য চিনি সেমাই।কিনতে পারেনি সন্তানদের জন্য নতুন জামা-কাপড়। দেড় মাস ধরে পানির সাথে যুদ্ধ করে বাড়ি ছাড়তে হয়েছে কয়েক দফা।

আশ্রয় নিতে হয়েছে উচু রাস্তা বা আশ্রয় কেন্দ্র । এখনো খেয়ে না খেয়ে মানবেতর ভাবে দিন পার করছে এসব মানুষ । এমন অবস্থা কুড়িগ্রামের ৫৬টি ইউনিয়নের ৬শ গ্রামের সাড়ে ৪ লক্ষ মানুষের। কি যে অর্বনীয় কষ্টে দিন কাটাচ্ছে না দেখলে বিশ^াস করা যাবে না।তবে কুড়িগ্রাম পুলিশ সুপার এবং শহরের কয়েকজন সুহ্রদয় ব্যক্তি প্রথম আলোরচর, গারুহারা, ঝুমকার চর, সারডোব এলাকায় কয়েকটি গরু নিজ উদ্যোগে কোরবানী দিয়েছে। এতে ঐ চরের মানুষরা কিছুটা মাংসের স্বাদ পেলেও অধিকাংশ চর-দ্বীপ চরের মানুষ এর স্বাদ পাবে না। নেই তাদের ঈদ আনন্দ।

এদিকে উজানের বৃষ্টিপাতে আবারও বাড়তে শুরু করেছে নদ-নদীর পানি।গেল ২৪ ঘন্টায় ধরলায় ১২ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ৪৪ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাতহত হচ্ছে। অপরদিকে ব্রহ্মপুত্রের চিলমারী পয়েন্টে ১১ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ২৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে, নুনখাওয়া পয়েন্টে ১৬ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমা ছুয়েছে আবার।

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © Rangpur Sangbad
Design & Develop By RSK HOST