রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ০৭:৩৯ পূর্বাহ্ন

রংপুর বিভাগে ৬৫৪ টি চরে নেই কোন ঈদ আনন্দ

রংপুর সংবাদ
  • প্রকাশের সময়ঃ শুক্রবার, ৩১ জুলাই, ২০২০

সাহানুর রহমানঃ নদী মাতৃক বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলে বিভাগ রংপুর, এখানেও নদীর দাপট অন্য সকল নদীর থেকে কোন কমতি নেই। রংপুর বিভাগে নদীগুলোর মধ্যে অন্যতম নদী হচ্ছে ব্রহ্মপুত্র,ধরলা,তিস্তা। এ নদী প্লাবিত এলাকায় আছে প্রায়৬৫৪ টি চর।

প্রতিবছরের বন্যায় এ চরাঞ্চলের মানুষ গুলো বন্যার পানিতে যে ভাবে ভাসমান জীবন যাপন করেন, অপর দিকে ঠিক তেমনিভাবে ভাঙ্গনের সীকর হয়ে বাস্তুহীন হয়ে পড়ে। এ সকল পরিস্থতির কারনে তাদের কাছে ইদ যেন এক দিকে নিরানন্দ, অন্য দিকে হৃদয় ভাঙ্গা কষ্ট।

প্রাকৃতিক দুর্যোগ এ চরাঞ্চলের মানুষের চির দিনের নিত্য সঙ্গি।বন্যায় বাঁধ ভেঙ্গে মানুষ আশ্রয় নিয়েছে উচু স্থানে। আশ্রয় কেন্দ্রের সল্পতার কারনে অনেকে খোলা আকাশের নিচে জীবন যাপন করছে। রংপুরের পীরগাছার ছাওলা ইউনিয়নের কয়েকটি চরে গিয়ে দেখা যায় সেখানে বসত বাড়ির কোন চিহ্ন নেই।

সেখানে এক ভুক্তভোগী রইচ মিয়া বলেন, হামার জীবন এন্তোনে বারে বারে ভাঙ্গে, বাড়ি হামার যেটে সেটে।ইদের কথা বলতেই রইচ মিয়া ডুকরে কেঁদে উঠে, বলতে গিয়ে আর বলে উঠতে পরেনি। এ রকম হাজারো মানুষ আছে হয়তো এভাবেই দুঃখ -কষ্ট কে বুকে আগলে ধরে স্ত্রী -সন্তান নিয়ে দিন অতিবাহিত করছেন। চরবাসিরা ইদ আনন্দ বুঝলেও পারেনা ইদ আনন্দ উপভোগ করতে।

সরকারী ভাবে তেমন কোনো ত্রান সহযোগীতা নেই বললেও চলে,তবে চরের মানুষ গুলো বলেন ত্রানের চেয়ে টেকশই মজবুত বাঁধ নির্মাণ করলে আমরা বেশি উপকৃত হবো এবং প্রতিবারে হয়তোবা ইদের যে আনন্দ তা সকলে আমরাও উপভোগ করতে পারবো।

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved © Rangpur Sangbad
Design & Develop By RSK HOST